গাজীপুর সদরে চিকিৎসার নামে চলছে অপচিকিৎসা!

প্রকাশিত: ৬:৩০ অপরাহ্ণ, জুন ১৮, ২০২১ | আপডেট: ৮:৫৬:অপরাহ্ণ, জুন ২১, ২০২১
গাজীপুর সদরে চিকিৎসার নামে চলছে অপচিকিৎসা!

মানিক মিয়া গাজীপুর সদর:

শিল্পের শহর গাজীপুর, আর শিল্প মানেই অনেক মানুষ। অধিক মুনাফার লোভে এই মানুষ গুলোকে লক্ষ করে গড়ে উঠছে বিভিন্ন হাসপাতালসহ ডায়নষ্টিক সেন্টার। কিন্তু আমাদের দেশের অধিকাংশ ক্লিনিক-হাসপাতালগুলো আজ সাধারণ মানুষের জন্য কসাইখানা ও মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। অধিক মুনাফার লোভে করছে ভুল চিকিৎসা এতে হচ্ছে রোগীর মৃত্যু অথবা বিকলঙ্গতা।

এর ব্যতিক্রম হয়নি গাজীপুর সদর উপজেলাতেও, সদরের ভাওয়ালগড় ইউনিয়নের মনিপুর মডেল হাসপাতালে পেটে ব্যথা নিয়ে গিয়েছিলেন মুদি দোকানি ফারুক (ছদ্মনাম)। হাসপাতালে যেতেই কয়েকটি পরীক্ষা (এক্সরে) করেন দায়িত্বরত ডাক্তার মোজাহিদ ফারুকী। পরে রোগীকে বলাহয় তার পেটে পাথর হয়েছে, ক্রমান্বয়ে ছয়টি ব্যাঁথা নাশক ইঞ্জেকশন পুশ করা হয়, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আরো জানায়, করতে হতে পারে ব্যয় বহুল অপারেশন। দরিদ্র রোগী বাধ্য হয়েই হাসপাতালের নির্দেশে খরচ করলেন তিন হাজার টাকা। কিন্তু এক সময় বুঝতে পারলেন কোন একটি ভুল হচ্ছে, অধিক নিশ্চিত হওয়ার জন্য গাজীপুরের “মেডিপ্যাথ হাসপাতল” এ পরীক্ষা করে জানতে পারেন পেটে পাথর বলে কিছু নেই এবং অস্ত্রোপচারও করতে হবে না। ভুক্তভোগী পরিবারটি হতভম্ব হয়ে গেলেন, তাহলে এতগুলো টাকা ওই হাসপাতালকে কেন দিলেন! বিশ্বস্ত সুত্রের গোপন ক্যামেরায় নেওয়া ভিডিও সাক্ষাতকারে উঠে এসেছে এমন অনেক অসঙ্গতির তথ্য। ওই ভিডিওতে ভুক্তভোগীর বাবাকেও দুঃখ প্রকাশ করতে দেখা যায়।

 

এই ঘটনায় সাংবাদিকদের একটি দল তথ্য সংগ্রহের জন্য হাসপাতালে গেলে, হাসপাতাল কতৃপক্ষ কোন সদুত্তোর দিতে পারেন নি, বরং ভুক্তভোগী বা যে হাসপাতালে সুস্থ্য হয়েছে তাদের একত্র করে বিচার বসানোর কথা বলেন।

 

মনিপুর মডেল হাসপাতালের নামে এর আগেও সন্তান প্রসব করাতে গিয়ে অদক্ষতার কারনে নবজাতকের মারাত্মক ক্ষতি করার পরিপ্রেক্ষিতে কয়েকটি গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়। বিভিন্ন কৌশলে ঘটনাটি পাশ কাটিয়ে যায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

 

বিগত সময়ে বেসরকারি হাসপাতালে কোন অসঙ্গতি দেখা দিলে জেলা সিভিল সার্জনকে অবহিত করলে তিনি ব্যবস্থা নেওয়ার দৃঢ় পদক্ষেপের কথা ব্যাক্ত করেন। কিন্তু এসব অবৈধ চিকিৎসাবাণিজ্যের সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা না নেওয়ায় প্রতিনিয়ত প্রতারিত হচ্ছে রোগী ও স্বজনরা।

 

এসব ব্যাঙের ছাতার মত গজিয়ে ওঠা এই হাসপাতাল গুলোতে অচিরে ব্যবস্থা না নিলে ঘটতে পারে মৃত্যু অথবা বিকলঙ্গতার মত ঘটনা। তাই এলাকাবাসীর দাবি অধিক মুনাফার লোভে ভুল চিকিৎসা দেওয়া প্রতারকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিয়ে শাস্তির দাবি জানান।


পুরাতন খবর দেখুন..

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031