গোমস্তাপুরে কালভার্টের জন্য ঘুরে যেতে হয় ৯ কিলোমিটার

প্রকাশিত: ৬:১২ অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০২১ | আপডেট: ৬:১২:অপরাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০২১
গোমস্তাপুরে কালভার্টের জন্য ঘুরে যেতে হয় ৯ কিলোমিটার

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) প্রতিনিধি:

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার আনারপুর-মেহেরপুর পাশাপাশি দুটি গ্রাম। গ্রামের ভিতর দিয়ে চলাচলের রাস্তায় রয়েছে একটি কালভার্ট। সম্প্রতি কালভার্টি ভেঙ্গে যাওয়ায় চরম ভোগান্তিতে রয়েছে এলাকাবাসী।

 

কালভার্টটি ভেঙ্গে যাওয়ায় আনারপুর-মেহেরপুরসহ পার্শ্ববর্তী ৫ গ্রামের বাসিন্দাদের দীর্ঘ ৯ কিলোমিটার ঘুরে যেতে হয়।

 

এত নারী, শিশু ও বয়স্ক ব্যক্তিদের চলাচলে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়। কৃষিপণ্য নিয়ে খুব বেকায়দায় রয়েছে কৃষকরা।

 

এলাকার কৃষক আব্দুল জব্বার বলেন, কালভার্ট ভেঙ্গে ৬ মাস পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেয়া হয়নি।

 

সম্প্রতি বেরো ধান উঠানোর সময় কৃষকদের চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। ঘুরে যাওয়ার কারণে অতিরিক্ত গাড়ির ভাড়া গুনতে হয়েছে।

 

বদর্তমানে ভারী যানবাহন নিয়ে উক্ত রাস্তা দিয়ে চলাফেরা করা যাচ্ছে না।

 

স্থানীয় ইউপি সদস্য ভাঙ্গা কালভার্টের উপর একটি বাঁশের পাটাতন তৈরি করে দেয়ায় শুধুমাত্র হেঁটে ও হালকা যান চলাচল করতে পারছে।

 

আনারপুর গ্রামের কভিদ আলী বলেন, কালভার্টটি ভেঙ্গে যাওয়ায় কমপক্ষে ৪ থেকে ৫ টি ওয়ার্ডের প্রায় ৫ হাজার লোকের চলাফেরায় সমস্যা হচ্ছে।

 

কৃষকদের চাষাবাদ ও কৃষি উপকরণ নিয়ে যেতে খুব সমস্যায় পড়তে হচ্ছে। দ্রুত কালভার্ট মেরামত করার দাবি জানান তিনি।

 

ইউপি সদস্য মোকসেদুল ইসলাম বলেন, কালভার্ট ভাঙ্গার বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা বরাবর একটি লিখিত আবেদনের মাধ্যমে জানানো হয়েছে।

 

 

এদিকে এলজিইডি, গোমস্তাপুর এর উদ্যোগে ৩/৪ দিন আগে সংযোগ সড়কটি নির্মাণের জন্য ওই এলাকা পরিদর্শন করেছে এবং দ্রুত নির্মাণ কাজ হবে বলে তারা আমাদের আশ্বস্ত করেছেন। সড়কটি নির্মাণ হলে কালভার্টটিও নির্মাণ হবে বলে আশা করা যায়।

 

এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান বলেন, কালভার্টটি নির্মাণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবর প্রস্তাব প্রেরণ করা হয়েছে। আমরা আশা করছি দ্রুত তা বাস্তবায়ন হবে।

 

উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) সুলতানুল ইমাম বলেন, আমাদের টিম উক্ত এলাকা পরিদর্শন করে প্রকল্প প্রস্তুত করেছে। বরাদ্দ পেলেই রাস্তা ও কালভার্ট নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


পুরাতন খবর দেখুন..

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031