সদর থানার অটোরিক্সা গ্যারেজের রাসেল হত্যার মূল আসামী গ্রেফতার

প্রকাশিত: ৯:৩৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০২১ | আপডেট: ৯:৩৩:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১, ২০২১
সদর থানার অটোরিক্সা গ্যারেজের রাসেল হত্যার মূল আসামী গ্রেফতার

জাকিরুল ইসলাম গাজীপুর প্রতিনিধিঃ

মামলার ঘটনার সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত আসামী জয়নাল @ জুয়েল (৩০), পিতা- মৃত খোরশেদ, মাতা- মৃত উকিনা, স্থায়ী সাং- জনগাঁাও গুচ্ছগ্রাম, পোঃ শিমুলবাড়ী, ইউপি- ভোমরাদহ, থানা- পীরগঞ্জ, জেলাঠাকুরগাঁও, বর্তমান সাং- টেক ভাড়ারিয়া মাসুমের বাড়ির ভাড়াটিয়া (ভাসমান), থানা- সদর, জিএমপি,
গাজীপুরকে গত ১৯/০৮/২০২১ তারিখ রাত ০১.৩০ ঘটিকার সময় জিএমপি সদর থানাধীন টেক ভাড়ারিয়া মসজিদ সংলগ্ন রাস্তা হতে অভিযান পরিচালনা করে গ্রেফতার করা হয়েছে।

০২/০৪/২০১৮ তারিখ রাত্র অনুমান ০১.০০ ঘটিকার পর হতে সকাল অনুমান ০৭.০০ ঘটিকার মধ্যে যে কোন সময় ভিকটিম মোঃ রাসেলকে (১৮) তার আপন চাচা মোঃ ইদ্রিস আলীর জিএমপি সদর থানাধীন টেক
ভাড়ারিয়া (মারীয়ালী কলাবাগান) এলাকার গ্যারেজের ভিতরে রক্তাক্ত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এ সংক্রান্তে ভিকটিমের মা মোসাঃ পারুল আক্তার (৩৬) জয়দেবপুর থানায় (বর্তমানে সদর থানা) অজ্ঞাতনামা আসামীদের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করলে জয়দেবপুর থানার মামলা নং-০৮, তাং-০২/০৪/২০১৮ ইং ধারা- ৩০২/৩৪
পেনাল কোড রুজু হয়।

মামলাটি গাজীপুর জেলার জয়দেবপুর থানা পুলিশ ০৬ মাস তদন্ত করে এবং পরবর্তীতে জিএমপি সদর থানা পুলিশ দীর্ঘ ১৪ মাস তদন্ত করে। গাজীপুর জেলা এবং জিএমপি পুলিশ কোন রহস্য উদঘাটন করতে না
পারায় পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, ঢাকা মামলাটি পিবিআই গাজীপুর জেলাকে তদন্তের নির্দেশ প্রদান করেন।

ডিআইজি পিবিআই জনাব বনজ কুমার মজুমদার, বিপিএম (বার), পিপিএম এর সঠিক তত্ত্বাবধান ও দিক নির্দেশনায় পিবিআই গাজীপুর ইউনিট ইনচার্জ পুলিশ সুপার, জনাব মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান এর সার্বিক সহযোগিতায় তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক জনাব এস এম শাকিল হাসান মামলাটি তদন্ত করেন।

গ্রেফতারকৃত আসামী জয়নাল @ জুয়েল (৩০), পিতা- মৃত খোরশেদ, মাতা- মৃত উকিনা, স্থায়ী সাংজনগাঁ গুচ্ছগ্রাম, পোঃ শিমুলবাড়ী, ইউপি- ভোমরাদহ, থানা- পীরগঞ্জ, জেলা- ঠাকুরগাঁও, বর্তমান সাং- টেক ভাড়ারিয়া মাসুমের বাড়ির ভাড়াটিয়া (ভাসমান), থানা- সদর, জিএমপি, গাজীপুরকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, সে
এবং তার সহযোগী অন্যান্য আসামীগন মামলার ঘটনাস্থল পাশ্ববর্তী একটি গ্যারেজে রিক্সা চালাত। মামলার ভিকটিম মোঃ রাসেল এর চাচা ইদ্রিস আলীর গ্যারেজে থাকা একটি নতুন অটোরিক্সা চুরি করার জন্য উক্ত আসামী গত ০২/০৪/২০১৮ তারিখ রাত অনুমান ১২.৩০ ঘটিকার সময় তার সহযোগী আসামীদের সাথে রাত অনুমান ০৩.০০ ঘটিকার সময় গ্যারেজের টিনের বেড়া ফাঁক করে গ্যারেজের ভিতরে প্রবেশ করে। অন্যান্য আসামীগন সে সময় গ্যারেজের সামনের রাস্তায় পাহাড়া দিতে থাকে। আসামী জয়নাল @ জুয়েল গ্যারেজের ভিতরে ঢুকে
এবং গ্যারেজের মূল গেইট বাইরে দিয়ে তালাবদ্ধ থাকায় সে গেটের চাবির জন্য ভিকটিমের মাথার বালিশ এর নীচে খোঁজার সময় ভিকটিম এর ঘুম ভেঙ্গে যায় এবং ভিকটিম চোর চোর বলে চিৎকার করতে থাকে। ভিকটিম রাসেল আসামী জয়নাল @ জুয়েলকে চিনে ফেলায় এবং সবাইকে চুরির বিষয়টি জানিয়ে দেয়ার কথা বলায় উক্ত
আসামী গ্যারেজে থাকা রিক্সা হাওয়া দেওয়ার পাম্পার দিয়ে ভিকটিমের মাথায় আঘাত করে নির্মম ভাবে হত্যা করে।

এই বিষয়ে পিবিআই গাজীপুর জেলার পুলিশ সুপার, জনাব মোহাম্মদ মাকছুদের রহমান বলেন, উল্লেখিত আসামী এবং তার সহযোগী অন্যান্য আসামীগন সকলেই মাদকসেবী এবং বিভিন্ন ধরনের চুরির সাথে জড়িত।
গ্রেফতারকৃত আসামী মামলার ঘটনাস্থল সংলগ্ন আশরাফ ড্রাইভার এর গ্যারেজের অটোরিক্সা চালাত। মূলতঃভিকটিম মোঃ রাসেল এর চাচা ইদ্রিস আলীর গ্যারেজে থাকা অটোরিক্সা চুরি করার জন্য উক্ত আসামী তার সহযোগী আসামীদের নিয়ে পরিকল্পিতভাবে গ্যারেজে প্রবেশ করে এবং গ্যারেজের ভিতরে থাকা ভিকটিম ঘুম
থেকে সজাগ হয়ে চুরির বিষয়টি জানতে পারায় তাকে গ্যারেজে থাকা হাওয়া দেওয়ার পাম্পার দিয়ে মাথায় আঘাত করে নৃশংস ভাবে হত্যা করে। গ্রেফতাকৃত আসামী জয়নাল @ জুয়েলকে গত ১৯/০৮/২০২১ তারিখ বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়। বিজ্ঞ আদালত আসামীকে ০১ দিনের পুলিশ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
আসামীকে পুলিশ রিমান্ডে প্রাপ্ত হয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ইং ৩০/০৮/২০২১ তারিখ বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করলে সে
নিজেকে জড়িয়ে ঘটনার সাথে জড়িত অন্যান্য আসামীদের নাম উল্লেখ করে স্বেচ্ছায় ফৌঃকাঃবিঃ এর ১৬৪ ধারা
মোতাবেক স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে।

Print

পুরাতন খবর দেখুন..

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31