শ্রীপুরে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন দুইজনকে অর্থদণ্ড

মানিক মিয়া মানিক মিয়া

সদর প্রতিনিধি, গাজীপুর

প্রকাশিত: ৬:১০ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩০, ২০২০ | আপডেট: ৬:১০:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩০, ২০২০
শ্রীপুরে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন দুইজনকে অর্থদণ্ড

মানিক মিয়া, সদর প্রতিনিধি:

গাজীপুরে শ্রীপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অবৈধভাবে গ্যাস ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৭অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষের (জোবিঅ-জয়দেবপুর) উদ্যোগে ও গাজীপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনীষা আহমেদের নেতৃত্বে শ্রীপুর উপজেলা আওতাধীন-মাধখলা, দোখলা, গড়গড়িয়া নতুন বাজার, আনসার রোডের উভয় পাশ এলাকায় অবৈধ গ্যাস পাইপ লাইন বিচ্ছিন্নকরণে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়।

বাংলাদেশ তুলা উন্নয়ন বোর্ড সংলগ্ন মাধখলা এলাকায় ৪টি স্পটে অবৈধভাবে স্থাপিত ২” ব্যাসের ৩ কিলোমিটার পাইপ লাইনের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। ফলে প্রায় ৪০০ টি বাড়ীর আনুমানিক ৮০০ অবৈধ চুলায় গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়। এসময় এলাকায় অভিযান পরিচালাকালে অবৈধ গ্যাস ব্যবহার করার দায়ে ২জনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

 

দোখলা গড়গড়িয়া নতুন বাজার এলাকায় ৩টি স্পটে অবৈধভাবে স্থাপিত ২” ও ১” ব্যাসের ২ কিলোমিটার পাইপ লাইনের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। ফলে প্রায় ২০০ টি বাড়ীর আনুমানিক ৪০০ অবৈধ চুলায় গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়।

 

এবং আনসার রোড পূর্ব পাশ এলাকায় ৩টি স্পটে অবৈধভাবে স্থাপিত ১” ও ৩/৪” ব্যাসের ১ কিলোমিটার পাইপ লাইনের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়। ফলে প্রায় ১৫০ টি বাড়ীর আনুমানিক ৩০০ অবৈধ চুলায় গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়।

 

তিতাস গ্যাসের (জোবিঅ-গাজীপুর) ব্যবস্থাপক মো. সুরুয আলম বলেন, যারা অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ গ্রহণ করেছেন এবং যারা গ্রামের সাধারণ মানুষকে গ্যাসের প্রলোভন দেখিয়ে অনাকাংক্ষিত ভয়াবহ গ্যাস দুর্ঘটনা দিকে ঠেলে দিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং কিছু কিছু জায়গায় এখনো অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার বাকি আছে। সে গুলো ব্যবহার কারিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে। এবং
এখন থেকে গাজীপুর জেলা প্রশাসনের সহায়তায় নিয়মিতভাবে অবৈধ গ্যাস সংযোগ উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 

অভিযান পরিচালনাকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এর সাথে ছিলেন, প্রকৌশলী. মো. সুরুয আলম, ব্যবস্থাপক(জোবিঅ-জয়দেবপুর), জনাব আবদুুল্লাহ হাসান আল মামুন, প্রকৌশলী. মির্জা শাহনেওয়াজ লতিফ, জনাব মো. মোশাররফ হোসেন(রাজস্ব)-উপব্যবস্থাপকবৃন্দ, জনাব মো. সাবিনুর রহমান (মি.ও ভি)-উপ-সহকারী প্রকৌশলী এবং রাজস্ব উপশাখার জনাব মো.আব্দুর রাজ্জাক ও জনাব মো. ইকবাল হোসেন চৌধুরী, সহকারী কর্মকর্তাদ্বয়, জনাব খান মিজানুর রহমান-সিনিয়র সুপারভাইজার, জনাব এস এম আনোয়ার হোসেন-বিক্রয় সহকারী, জনাব মো.সামসুল হক-প্রকর্মীসহ টেকনিক্যাল টিম উপস্থিত ছিলেন।
অভিযান চলাকালে পুলিশ ও আনসার সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেন।


পুরাতন খবর দেখুন..

Mon Tue Wed Thu Fri Sat Sun
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30